• বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:৪০ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ায় নৌকার বিপক্ষে লড়বেন সাবেক দুই এমপি ও হানিফের আসনে মেয়র পুত্র তনু

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
Update : মঙ্গলবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২৩
কুষ্টিয়ায় নৌকার বিপক্ষে লড়বেন সাবেক দুই এমপি ও হানিফের আসনে মেয়র পুত্র তনু
কুষ্টিয়ায় নৌকার বিপক্ষে লড়বেন সাবেক দুই এমপি ও হানিফের আসনে মেয়র পুত্র তনু

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন কুষ্টিয়া-১ (দৌলতপুর) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য রেজাউল হক চৌধুরী, কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসন থেকে পৌরসভার মেয়র আনোয়ার আলীর পুত্র পারভেজ আনোয়ার তনু ও কুষ্টিয়া-৪ (কুমারখালী-খোকসা) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুর রউফ। তারা স্থানীয় নির্বাচন অফিস থেকে মনোনয়ন ফরম উত্তোলন করেছেন।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) সকালে দিকে আব্দুর রউফ, রেজাউল হক চৌধুরী ও মেয়র পুত্র পারভেজ আনোয়ার তনু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কুষ্টিয়া-১ (দৌলতপুর) রেজাউল হক চৌধুরী ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত সংসদ নির্বাচনে আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আফাজ উদ্দিন আহমদকে পরাজিত করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি। কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনের পারভেজ আনোয়ার তনু একজন ব্যবসায়িক। আপদামস্তক আওয়ামী পরিবারের সন্তান হিসেবে দলীয় পদ-পদবী না থাকলেও ‌তিনি একজন ক্রীড়া সংগঠক। তিনি দুইবার জেলা যুবলীগের সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ছিলেন। তিনি সর্বশেষ জেলা ছাত্রলীগের ক্রীড়া সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও পাঁচবারের পৌর মেয়র বর্ষীয়ান নেতা আনোয়ার আলীর ছেলে। পারভেজ আনোয়ার তনু কুষ্টিয়া পৌরসভার আড়ুয়াপাড়া এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা। কুষ্টিয়া-৪ (কুমারখালী-খোকসা) আসন থেকে আব্দুর রউফ ২০১৪ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য। আব্দুর রউফ কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী উপজেলার বাঁশগ্রাম গ্রামের বাসিন্দা।

তফসিল ঘোষণার পর আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে কুষ্টিয়ার ৪টি সংসদীয় আসন থেকে ৪১ জন মনোনয়ন ফরম কিনেছিলেন। তাদের মধ্যে বর্তমান সংসদ সদস্য হানিফ, জর্জ, বাদশাহ’কে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। তবে কুষ্টিয়া-২ (মিরপুর-ভেড়ামারা) আসনের প্রার্থী ঘোষণা করা হয়নি। কুষ্টিয়া-১ (দৌলতপুর) আসনে সংসদ সদস্য ও দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ কা ম সরওয়ার জাহান বাদশাহ, কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল আলম হানিফ ও কুষ্টিয়া-৪ (কুমারখালী-খোকসা) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য ও যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ মনোনয়ন পেয়েছেন। কুষ্টিয়া-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য রেজাউল হক চৌধুরী বলেন, আমি দলীয় মনোনয়ন পায়নি। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবো। আমি এই আসনের সাবেক সংসদ সদস্য। দৌলতপুরের অনেক উন্নয়ন আমার সময়ে হয়েছে। দৌলতপুরে মানুষ আমার সঙ্গে আছেন। কুষ্টিয়া-৩ সদর আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মেয়র পুত্র পারভেজ আনোয়ার তনু বলেন, এ আসনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের স্বতন্ত্র ভোট করার জন্য বলেছেন। এতে কেউ বাধা দিবে না, তার এই কথাকে বিশ্বাস করে আমি মানুষের সেবা করতে চাই। আমি মনে করি কুষ্টিয়ার আরো উন্নয়ন হওয়া উচিত।

কুষ্টিয়া-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুর রউফ বলেন, আমি কুমারখালী-খোকসা আসনের সাবেক সংসদ সদস্য। এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছিলাম। আমি দলীয় মনোনয়ন পায়নি। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। আসন্ন নির্বাচনে আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবো। কুমারখালী-খোকসার মানুষ আমার সঙ্গে আছে। আমাদের জয় হবে ইনশাআল্লাহ।

এবিষয়ে একাধিক আওয়ামী লীগের নেতা জানিয়েছেন, এবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুষ্টিয়া-১, কুষ্টিয়া-৩ ও কুষ্টিয়া-৪ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য রউফ ও রেজাউল এবং মেয়র পুত্র পারভেজ আনোয়ার তনু নৌকার বিপক্ষে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন। এক্ষেত্রে দলও খুব একটা কঠোর হবে না। কারণ, বিএনপি ভোটে আসবে না, এটি ধরে নিয়েই ক্ষমতাসীনেরা প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন দেখাতে চাইছেন। যাতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় কেউ জিততে না পারেন। আওয়ামী লীগের লক্ষ্য নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ করে তোলা, ভোট উৎসবমুখর করা ও কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি বাড়ানো। নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক করে তুলতে একাধিক স্বতন্ত্র প্রার্থী মাঠে রাখা। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থীদের নির্বাচন কমিশনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ আগামী ৩০ নভেম্বর।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category