• রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:১০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
কুষ্টিয়ার গ্রামে গ্রামে কুমড়ো বড়ি তৈরীর ধুম গাংনীতে জোরপূর্বক জ‌মি দখ‌লের অপ‌চেষ্টার বিরু‌দ্ধে সংবাদ সম্মেলন গাংনীতে নাশকতা মামলায় বিএনপি নেতা জাহাঙ্গীর গ্রেফতার মেহেরপুর রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত কুষ্টিয়ায় বাড়ছে প্রতিবন্ধীর সংখ্যা একই পরিবারে ১৭ জন প্রতিবন্ধী মেহেরপুর জেলা পরিষদের রেস্ট হাউজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন গাংনীর সাহারবাটি গ্রামের সাবেক মেম্বার রুহুল কুদ্দুসের দাফন সম্পন্ন কুষ্টিয়ায় ট্রাকের ধাক্কায় ঝরলো দুটি প্রাণ প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয়: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন গাংনী প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত কমিটির শপথ অনুষ্ঠিত

খুলনার পথে মেহেরপুর বিএনপির নেতাকর্মীরা

বিবর্তন প্রতিবেদক / ৯২ Time View
Update : শুক্রবার, ২১ অক্টোবর, ২০২২
খুলনার পথে মেহেরপুর বিএনপির নেতাকর্মীরা
খুলনার পথে মেহেরপুর বিএনপির নেতাকর্মীরা

রাত পোহালেই খুলনা বিভাগীয় সমাবেশ। সমাবেশে অংশগ্রহণ করতে মেহেরপুর জেলা ও তিন উপজেলা বিএনপির অধিকাংশ নেতাকর্মীরা ইতোমধ্যে যাত্রা করেছেন। সমাবেশস্থলে যেনো যোগ না দিতে পারে সে লক্ষে রাতের আঁধারে প্রশাসনের পক্ষ থেকে চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য মাসুদ অরুন। শুক্রবার (২১ অক্টোবর) সকাল থেকেই অঘোষিত পুলিশি ব্যারিকেড তৈরি করার অভিযোগও করেন বিএনপির নেতাকর্মীরা।

জানাগেছে, খুলনা বিভাগীয় সমাবেশে অংশগ্রহন করতে বেশ কিছুদিন থেকেই জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন বিএনপির নেতাকর্মীরা ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করে। এবং অন্যান্য বিভাগীয় সমাবেশের দুই দিন আগেই অঘোষিত অবরোধ বা হরতাল পালন হয়েছে। সেই অভিজ্ঞতা থেকেই মেহেরপুর জেলা, উপজেলা বিএনপি, যুবদল, সেচ্ছাসেবক দল, ছাত্রদলসহ বিভিন্ন অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা কয়েকদিন থেকেই ট্রেন, বাস ও মোটরসাইকেলযোগে অনেকেই খুলনায় পৌছে গেছেন। তবে আন্তঃজেলা বাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।
মেহেরপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য মাসুদ অরুণ বলেন, বিভাগীয় সমাবেশে যোগ দেওয়ার জন্য আমাদের নেতা কর্মীরা ইতিমধ্যে কেউ কেউ রওনা হয়েছেন। আবার কেউ কেউ আজ রাত্রে রওনা দেবেন। তিনি আরো জানান, জেলায় প্রকাশ্যে পুলিশি কোন ঝামেলা না থাকলেও গত বৃহস্পতিবার রাত্রে সাদা পোশাকে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে বিভিন্ন গ্রামে বাড়ি বাড়ি যেয়ে কর্মীদের সমাবেশে না যাওয়ার জন্য হুমকী দিয়ে এসেছে।
জেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি জাভেদ মাসুদ মিল্টন বলেন, আমি গতরাতে ঢাকা থেকে খুলনায় পৌছেছি। তবে আমি ঢাকা থেকে বাগেরহাট পর্যন্ত কোন বাঁধার সম্মুখিন না হলেও রাত সাড়ে তিনটার দিকে রুপসা ব্রিজের আগেই একটি স্থানে ২০-২৫ যুবক বসে ছিলো। আমি কে তা জানে না তাই হয়তো ঝামেলা করেনি। তবে আমাদের মেহেরপুরের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন কৌশলে খুলনা পৌছে যাবে।
জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক ফয়েজ মোহাম্মদ জানান, আমরা মাইক্রো নিয়ে রাতে রওনা দিবো কিছু কিছু বাঁধার সম্মুখিন হতে পারি সেটা জেনেই বিকল্প রাস্তায় পৌছাবো।
জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জুলফিকার আলী ভুট্টো বলেন, আমরা অনেক নেতাকর্মী ট্রেনে যাচ্ছি।

তবে এ বিষয়ে মেহেরপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি সাইফুল আলম জানান, আমরা এরকম কোন কাজে যায়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category