• রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
কুষ্টিয়ার গ্রামে গ্রামে কুমড়ো বড়ি তৈরীর ধুম গাংনীতে জোরপূর্বক জ‌মি দখ‌লের অপ‌চেষ্টার বিরু‌দ্ধে সংবাদ সম্মেলন গাংনীতে নাশকতা মামলায় বিএনপি নেতা জাহাঙ্গীর গ্রেফতার মেহেরপুর রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত কুষ্টিয়ায় বাড়ছে প্রতিবন্ধীর সংখ্যা একই পরিবারে ১৭ জন প্রতিবন্ধী মেহেরপুর জেলা পরিষদের রেস্ট হাউজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন গাংনীর সাহারবাটি গ্রামের সাবেক মেম্বার রুহুল কুদ্দুসের দাফন সম্পন্ন কুষ্টিয়ায় ট্রাকের ধাক্কায় ঝরলো দুটি প্রাণ প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয়: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন গাংনী প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত কমিটির শপথ অনুষ্ঠিত

কুষ্টিয়া-নারায়ণগঞ্জ রুটে ঈগল পরিবহন বন্ধ

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি / ১৩৬ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ৪ আগস্ট, ২০২২

কুষ্টিয়া প্রাগপুর থেকে ছেড়ে যাওয়া ঈগল পরিবহনে ডাকাতি হওয়ায় হেলপার, সুপারভাইজার জড়িত থাকতে পারে বলে অভিযোগ যাত্রিদের।

টাঙ্গাইলে চলন্ত বাসে যাত্রীদের জিম্মি করে গণডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনায় কুষ্টিয়া-নারায়ণগঞ্জ রুটে চলাচলকারী ঈগল পরিবহন বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ।

পুলিশ, ভুক্তভোগীদের স্বজন ও ঈগল পরিবহন সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার (০২ আগস্ট) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঈগল পরিবহনের একটি বাস কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকা প্রাগপুর থেকে নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়েযায়।

বাসটি সিরাজগঞ্জের কাছাকাছি দিবারাত্রি হোটেলে রাতের খাবার খাওয়ার জন্য বিরতি দেয়। রাত দেড়টার দিকে আবার যাত্রা শুরু করে। পথে কাঁধে ব্যাগ বহনকারী ১০-১২ জন যাত্রী বাসে ওঠেন। বাসটি বঙ্গবন্ধু সেতু পার হওয়ার পর যাত্রী বেশে থাকা ডাকাতরা অস্ত্রের মুখে বাসটির নিয়ন্ত্রণে নিয়ে মারধর, ডাকাতি ও এক নারীকে ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় বাসের এক যাত্রী বাদী হয়ে টাঙ্গাইলের মধুপুর থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে মামলা করেছেন।

ঈগল পরিবহনের কুষ্টিয়ার লাইনম্যান পলাশ উদ্দিন বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে প্রাগপুর থেকে বাসটি নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশে রওনা হয়। পথিমধ্যে কুষ্টিয়ার হোসেনাবাদ, ডাংমড়কা, আল্লাহরদর্গা, রাজাপুর, কাচিকাটাসহ বিভিন্ন কাউন্টার থেকে প্রায় ২৮ জন যাত্রী ওঠেন।

তার মধ্যে তিন-চারজন যাত্রী সুপারভাইজার রাব্বির ছিল। বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনার পর কুষ্টিয়া-নারায়ণগঞ্জ রুটে ঈগল পরিবহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। কর্তৃপক্ষ আমাদের বুধবার সকালের দিক থেকে টিকিট বিক্রি করতে নিষেধ করে দিয়েছেন।

ওই বাসের চালকের নাম মনি আহমেদ ও হেলপার দুলাল। প্রায় ২০ দিন আগে মনি বাসের চালক হিসেবে যুক্ত হন।

বাসের যাত্রীরা জানায়, বুধবার গভীর রাতে সিরাজগঞ্জ পৌঁছালে সেখান থেকে কয়েকজন ডাকাত যাত্রীবেশে ওই বাসে ওঠেন।

এরপর বাসটি বঙ্গবন্ধু সেতু পার হওয়ার পর ডাকাতদল বাসটি নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়। বাসে থাকা সব যাত্রীর হাত, পা ও চোখ বেঁধে মারধর ও লুটপাট করে। এ সময় বাসের ভেতরে এক নারী যাত্রীকে ডাকাতেরা পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

বাসের সুপারভাইজার ও ড্রাইভারের বোকামির কারণে ঘটনাটি ঘটেছে। তারা ওই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকতেও পারে। তারা আরও বলেন, বাসটি বিভিন্ন স্থানে ঘুরিয়ে তিন ঘণ্টার মতো নিয়ন্ত্রণে রাখে।

বাসটি পথ পরিবর্তন করে টাঙ্গাইল- ময়মনসিংহ সড়কের মধুপুর উপজেলার রক্তিপাড়া জামে মসজিদের পাশে বালুর ঢিবিতে উল্টে দিয়ে ডাকাত দল পালিয়ে যায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category