• বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১২:২৬ অপরাহ্ন

সরকারের ঘোষণা এক ঘন্টা, পাচ্ছি ১০ ঘন্টা

বিবর্তন প্রতিবেদক / ১৫৫ Time View
Update : বুধবার, ২০ জুলাই, ২০২২

সরকারের রেশনিং পদ্ধতিতে দেওয়া এক ঘন্টা লোডশেডিংয়ের স্থলে মেহেরপুরের গ্রাহকরা পাচ্ছে ১০ ঘন্টা।

মঙ্গলবার ১৯ জুলাই সারাদিন ও রাত মিলিয়ে ২৪ ঘন্টায় বিদ্যুৎ পাননি এলাকার মিল কলকারখানা ও আবাসিক গ্রাহকরা।

একদিকে তীব্র তাপদাহ সেই সাথে অসহনীয় লোডশেডিংয়ে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগ বলছেন তারা নিজেরাও জানেনা এমন হওয়ার কারন।

মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি সূত্রে জানাগেছে, গাংনী স্টেশনের আওতায় ১১ মেগাওয়াট চাহিদা থাকলেও সরবরাহ পাওয়া যাচ্ছে সাড়ে ৪ মেগাওয়াট। যা চাহিদার তুলনায় খুবই নগন্য। ফলে লোডশেডিংয়ের মাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে।

গাংনী উপজেলার কুঞ্জনগর গ্রামের মজনুর রহমান আকাশ বলেন, আমাদের এলাকায় ২৪ ঘন্টায় সরকারীভাবে এক ঘন্টা লোডশেডিংয়ের কথা থাকলেও ১০ থেকে ১২ ঘন্টা লোডশেডিং হচ্ছে।

২০ থেকে ৩০ মিনিট পর দেড় থেকে দুই ঘন্টার জন্য লোডশেডিংয়ে পড়তে হচ্ছে। তীব্র গরমে এলাকার জনগন অতিষ্ট হয়ে পড়েছে।

সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়েছেন মুরগী ও গরু ছাগলের খামারীরা। ইতোমধ্যে বেশ কিছু খামারের মুরগী মারাগেছে। একই কথা জানালেন মুজিবনগর উপজেলার সোহাগ মন্ডল, আব্দুর রাজ্জাকসহ অনেকেই।

গাংনী জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) আবুল কাশেম জানান, গড়ে সারাদিনই লোডশেডিং চলছে। নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে চাই। কিন্তু আমাদের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন গ্যাস স্বল্পতার কারনেই এরকম লোডশেডিং হচ্ছে। আরও কিছুদিন এরকম সমস্যা হতে পারে।

তিনি আরও জানান এখনও সুষম বন্টনের দিকে আমরা তাকিয়ে আছি। পরবর্তী নিদের্শনা না পাওয়া পর্যন্ত বুঝতে পারছিনা আমরা কি করবো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category